Show Posts in

ডায়াবেটিস রোগীর জন্য বিপদজনক বা ক্ষতিকর খাবার

ডায়বেটিস রোগীদের খাবারের দিকে অনেক বেশি সাবধানতার প্রয়োজন। কিছু খাবার খাওয়া ডায়াবিটিস রোগীদের জন্য অনেক বেশি ক্ষতিকর। ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতে এসব খাবার না খাওয়াই ভালো। ডায়াবেটিস রোগীদের শরীরে প্রয়োজনীয় পুষ্টির জন্য সুগারের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকে এমন খাবার খাওয়া উচিৎ। সম্মানিত পাঠক জেনে নিন ডায়াবেটিস রোগীর জন্য বিপদজনক বা ক্ষতিকর …

ডায়াবেটিস রোগীর প্রতিদিনের খাদ্য তালিকা

অনেক স্বাস্থ্যকর খাবার আছে যা ডায়াবেটিস রোগীকে সুস্থ্য থাকতে সহায়তা করে। আবার কিছু খাবার আছে যেগুলো ডায়াবেটিস প্রতিরোধও করে। ডায়াবেটিস রোগে যারা আক্রান্ত, তারা জেনে নিন সুস্থ থাকার জন্য কোন ধরনের খাদ্য নিয়মিত গ্রহণ করবেন। আসুন এবার জেনে নেই ডায়াবেটিস রোগীর প্রতিদিনের খাদ্য তালিকা বা ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে উপকারী খাবার …

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে উপকারী ফলমূল

ডায়াবেটিসে আক্রান্ত মানুষগুলো সব সময় দ্বিধায় থাকেন কোন ফল তার জন্য ভাল এবং কোনটা ক্ষতিকর। ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হলে অনেকে ফলমূল খাওয়া বন্ধ করে দেন। যা একদমই ঠিক কাজ নয়। বরং ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হলে শরীরকে দূর্বল হয়ে পড়া থেকে রক্ষা করতে নিয়মিত ফল খেতে হবে। অবশ্য বুঝে শুনে যে …

ডায়াবেটিস রোগীর জন্য উপকারী শাক সবজি

ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হলে শরীরকে দূর্বল হয়ে পড়া থেকে রক্ষা করতে নিয়মিত প্রচুর পরিমাণে শাক সবজি খেতে হবে। অবশ্য বুঝে শুনে যে শাক সবজি গুলি স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী সেগুলি খেতে হবে। সবুজ শাক সবজি ডায়াবেটিস হওয়ার ঝুঁকি কমায়। পালং শাক, পাতা কপি, শালগম, ফুলকপি, বাঁধাকপি, লেটুস পাতা ইত্যাদিতে ক্যালরি …

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে উপকারী মশলা এবং হার্ব সমূহ

মানব শরীরের অগ্ন্যাশয় যদি পর্যাপ্ত ইনসুলিন তৈরি করতে না পারে অথবা ইনসুলিন যদি শরীরে সঠিক ভাবে কাজ করতে ব্যাহত হয় তাহলে সেটাকে ডায়াবেটিস বলা হয়। ডায়াবেটিস নির্দিষ্ট মাত্রার বাইরে গেলে তা শরীরের ভয়াবহ ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। তাই এ রোগে আক্রান্ত হওয়ার পর নিয়ন্ত্রণে রাখাই সর্বোত্তম পস্থা। এ …

বাংলাদেশের সামুদ্রিক মাছ পরিচিতি এবং ছবিসহ তালিকা

সামুদ্রিক মাছ অনেকেরই প্রিয় খাবার। নিয়মিত সামুদ্রিক মাছ খেলে বেশ কিছু সমস্যা থেকে মুক্ত থাকা যায়। সামুদ্রিক মাছে রয়েছে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড, ভিটামিন এ এবং ভিটামিন ডি। এই সবকটি উপাদানই একাধিক জটিল রোগকে দূরে রাখে। সেই সঙ্গে সার্বিকভাবে শরীরের গঠনেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। সামুদ্রিক মৎস্য …

কলার উপকারিতা এবং পুষ্টিগুণ

কলা অধিক পুষ্টিগুণ সম্পন্ন জনপ্রিয় একটি ফল। মিষ্টি স্বাদের এই ফলটি বেশ সুস্বাদু এবং স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত উপকারী একটি খাবার। কলা এমনই একটি ফল যা সব বয়সের লোকেরাই খেতে পারে। নাস্তায় প্রায় সবাই কলা খেতে পছন্দ করেন। কলায় প্রচুর পরিমাণ পটাশিয়াম, ভিটামিন বি এবং ফাইবার থাকে। কলা ভিটামিন …

ডালিম বা বেদানার উপকারিতা এবং পুষ্টিগুণ

ডালিম বা বেদানা সবারই পছন্দের একটি ফল। পুষ্টিগুণে আধিক্যতার কারনে আমাদের স্বাস্থ্য রক্ষায় ডালিমের অবদান অপরিসীম। আর এই স্বাস্থ্য সুরক্ষার কথা ভেবে অনেকেই নিয়মিত ডালিম খেয়ে থাকেন। ডালিম একটি প্রায় চর্বিমুক্ত ফল। ডালিম কার্যকরীভাবে ভিটামিন সি, পটাশিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, ফসফরাস ও জিংক দ্বারা সমৃদ্ধ। এছাড়াও ডালিম ভিটামিন বি কমপ্লেক্স …

খেজুরের উপকারিতা এবং পুষ্টিগুণ

খেজুর খুবই পুষ্টিকর একটি ফল। খেজুরকে প্রাকৃতিক শক্তির উৎস বলা হয়। এর কারণ মাত্র তিন-চারটি খেজুর থেকে যে পরিমাণ এনার্জি পাওয়া যায় তা অন্য কোনো ফল থেকে পাওয়া যায় না। খেজুর খাওয়া স্বাস্থের জন্য খুবই উপকারী। খেজুরে রয়েছে ভিটামিন, ফাইবার, ক্যালসিয়াম, আয়রন, ফসফরাস, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম ও জিঙ্ক যা …

কিশমিশের উপকারিতা এবং পুষ্টিগুণ

কিসমিস হল আঙুর ফলের শুকনা রূপ। তাই কিসমিসকে শুকনো ফলের রাজাও বলা হয়। সোনালী-বাদামী রংয়ের চুপসানো ভাঁজ হওয়া ফলটি খুবই শক্তিদায়ক। এটি তৈরি করা হয় সূর্যের তাপ অথবা মাইক্রোওয়েভ ওভেনের সাহায্যে। তাপে ফ্রুক্টোজগুলো জমাট বেঁধে পরিণত হয় কিশমিশে। আর এভাবেই আঙ্গুর শুকিয়ে তৈরি করা হয় মিষ্টি স্বাদের কিসমিস। …

আনারসের উপকারিতা এবং পুষ্টিগুণ

আনারস মিষ্টি, রসালো ও তৃপ্তিকর একটি ফল। আনারস বর্ষাকালীন ফল হলেও এখন প্রায় সারা বছরই পাওয়া যায়। এটি যেমন সুস্বাদু তেমন মানব দেহের জন্য অনেক উপকারি। অসংখ্য গুণে গুনান্বিত এই ফল খেয়ে যেমন শরীরে পানির চাহিদা মেটানো যায় তেমনি বাড়তি পুষ্টিগুণ পেতে জুড়ি নেই এর। আনারসে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন …

কালোজিরার উপকারিতা এবং ঔষধি গুন

কালোজিরা কে বলা হয় ‘মৃত্যু ছাড়া সর্ব রোগের মহৌষধ’। প্রায় প্রত্যেকের রান্নাঘরেই কালোজিরা থাকে যা খাবারকে সুবাসিত করে। কালো জিরা ভর্তা আমরা অনেকেই শখ করে খাই। রান্নার মশলার মধ্যে কালো জিরার গুণাগুণের তুলনা নেই। কালো জিরা শুধু ক্ষুধা বাড়ায় তা নয়, পেটের বায়ুনাশক ও ফুসফুসের রোগেও মহাউপকারী। রান্না …