Show Posts in

শারীরিক দুর্বলতা ও ক্লান্তি দূর করতে কি করবেন?

মাঝে মাঝে সারাক্ষণ শুধু ঘুম ঘুম ভাব লেগে থাকে। অনেক সময় কাজের মাঝে কিংবা অযথাই শরীরে ভর করে রাজ্যের ক্লান্তি এবং দুর্বলতা। শরীর নাড়াতেও কষ্ট হয় সে সময়। শারীরিক দুর্বলতা কাজের উৎসাহ একেবারে নষ্ট করে দেয়।সামান্য শারীরিক দুর্বলতা আমরা চাইলেই ঘরে বসে ঠিক করতে পারি। কিন্ত এই ধরণের …

রক্তস্বল্পতা বা এনেমিয়া দূর করে যেসব পুষ্টিকর খাবার

রক্তে হিমোগ্লোবিনের পরিমাণ স্বাভাবিকের তুলনায় কম থাকলে তাকে রক্তস্বল্পতা বা রক্তশূন্যতা বা এনেমিয়া বলা হয়ে থাকে। বাংলাদেশে অনেক মানুষ রক্তস্বল্পতা রোগে ভোগে। বিশেষ করে যারা পুষ্টিকর খাবার থেকে বঞ্চিত তাদের রক্তস্বল্পতার প্রবণতা বেশি হয়। রক্তস্বল্পতা রোগের চিকিৎসার জন্য প্রথমে পরিবর্তন আনতে হবে আমাদের প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায়। যে সব খাবারের …

দৈহিক শক্তি বৃদ্ধি করে যেসব পুষ্টিকর খাবার

দৈহিক শক্তি ও খাদ্যাভ্যাসের মধ্যে একটি নিবিড় সম্পর্ক রয়েছে। বর্তমান যুগে দৈহিক শক্তি বৃদ্ধির জন্য প্রাকৃতিক খাদ্যই অনেক বেশি কার্যকরী হিসেবে বিবেচিত হয়। শরীরে শক্তি বৃদ্ধির জন্য পুষ্টিকর খাবারের কোন বিকল্প নেই, নিয়মিত পুষ্টিকর খাবার খেয়ে গেলেই শরীরে  দ্রুত শক্তি পাওয়া যায়। তাই দৈনন্দিন খাবারের প্রতি পূর্ণ মনোযোগী …

গুনেভরা সজনের উপকারিতা এবং পুষ্টিগুণ

সজনে ডাঁটা অনেকেরই বেশ পছন্দের একটি সবজি। সজনে ডাঁটা কেবল খেতেই যে সুস্বাদু তা নয় বরং এটি স্বাস্থ্য সুরক্ষার কাজেও বেশ প্রয়োজনীয়। বসন্তের শেষের দিকে সজনে ডাঁটা বাজারে ওঠে। সজনের তরকারি এবং সজনের ডাল অনেকের কাছেই বেশ প্রিয় একটি খাদ্য। শুধু সজনের ডাঁটাই নয়, সজনের পাতাও শাক হিসেবে …

অতিরিক্ত চুল পড়া রোধ করে যে খাবার গুলি

অতিরিক্ত চুল পড়া  ইদানীং নারী-পুরুষ সকলকেই অনেক বড় সমস্যা হয়ে দাড়িয়েছে। বিভিন্ন কারণে চুল পড়তে পারে। বংশগত, পরিবেশগত, দুশ্চিন্তা, পুষ্টিহীনতা, স্ট্রেস ইত্যাদি নানা কারণে চুল পড়তে পারে।  তবে বর্তমানের বিরূপ আবহাওয়া এবং চুলের প্রতি যথেষ্ট যত্নবান না হওয়ার কারণেই শুরু হয় এই চুল পড়ার সমস্যা। প্রথম দিকে চুল …

ডায়াবেটিস কি, লক্ষণ, প্রকারভেদ এবং কারণ সমূহ

ডায়াবেটিস কি? বর্তমানে ডায়াবেটিস এখন একটি সর্বজনীন সমস্যা। ডায়াবেটিস এর একটা সাধারণ অর্থ হচ্ছে আমাদের রক্তে প্রোয়জনের তুলনায় সুগার (চিনি ) বা শর্করা বেড়ে যাওয়া। শরীরে ইনসুলিন নামের হরমোনের অভাব ঘটলে, ইনসুলিনের কাজের ক্ষমতা কমে গেলে অথবা উভয়ের মিলিত প্রভাবে রক্তে যদি শর্করার পরিমাণ স্বাভাবিকের চেয়ে বেড়ে যায় তখন তাকে …

ডায়াবেটিস নির্ণয় করার পরীক্ষা

রক্তের গ্লুকোজের মাত্রা পরিমাপ করে ডায়াবেটিস শনাক্ত করতে হয়। সাধারণত ডায়াবেটিসের দুটি অতি পরিচিত পরীক্ষা করা হয়ে থাকে- প্রথমটি খালি পেটে এবং দ্বিতীয়টি খাদ্য গ্রহণের পর দু ঘন্টার মধ্যে রক্তের গ্লুকোজের পরিমান নিধার্রন। সুস্থ ব্যক্তির রক্তের প্লাজমায় গ্লুকোজের পরিমাণ অভুক্ত অবস্থায় ৬.১ মিলি মোলের কম এবং খাবার ২ …

ডায়াবেটিস হয়েছে কিনা কিভাবে বুঝবেন?

ডায়াবেটিস একটি হরমোন সংশ্লিষ্ট রোগ। আমাদের দেহের অগ্ন্যাশয় যদি যথেষ্ট ইনসুলিন তৈরি করতে না পারে অথবা শরীর যদি উৎপন্ন ইনসুলিন ব্যবহারে ব্যর্থ হয়, তাহলে যে রোগ হয় তা হলো ‘ডায়াবেটিস‘ বা ‘বহুমূত্র রোগ’। ইনসুলিনের অভাবে শর্করা জাতীয় খাবার বিপাকে সমস্যা হয়, তখন রক্তে চিনি বা শকর্রার উপস্থিতিজনিত অসামঞ্জস্য দেখা দেয়। বাংলাদেশে ডায়াবেটিস রোগীর সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলছে। …

ডায়াবেটিস রোগীর হাইপোগ্লাইসোমিয়া এবং কোমা

হাইপোগ্লাইসোমিয়া হাইপোগ্লাইসোমিয়া হল রক্তে শর্করার স্বল্পতা। রক্তের শর্করার পরিমান কমাবার জন্য যদি ট্যাবলেট খাওয়া বা ইনসুলিন নেয়া হয় এবং এর ফলে রক্তে শর্করার পরিমান ২.৫ মি:মোল/লিটার এর কম হয়ে যায় তবে (Hypoglycemia) হয়। এ অবস্থায় রোগীর নিম্নবর্ণিত লণ দেখা যায়:- ১. খুবই অসুস্থ বোধ করা; ২. বেশী ঘাম …

ডায়াবেটিস প্রতিরোধের উপায়

বর্তমানে বিশ্বজুড়ে ডায়াবেটিসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দিনদিন বেড়েই চলেছে। ডায়াবেটিস এর প্রকোপ বাড়ার সাথে সাথে ডায়াবেটিস জনিত জটিলতাগুলো বাড়ছে এর ফলে ডায়াবেটিস চিকিৎসার  ব্যয়ও বাড়ছে দিন দিন। এখনকার দিনে মানুষ এতটাই ব্যস্ত থাকেন যে, প্রাত্যহিক জীবনে একটু ব্যায়াম করা’ত দূরের কথা নিয়ম করে হাঁটাচলা করার সময়ই পান না। …

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রনের উপায়

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণের জন্য পরিপূর্ণ শৃংখলাবদ্ধ জীবন খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সুশৃঙ্খল জীবনযাপন করলে এবং কিছু নিয়মকানুন সুন্দরভাবে মেনে চললে ডায়াবেটিস নামক রোগটি সম্পূর্ণভাবে নিয়ন্ত্রণে রেখে সু্‌স্থ্যভাবে জীবন অতিবাহিত করা যায়। এক্ষেত্রে ব্যায়াম এবং খাবারের দিকটা বেশি বেশি খেয়াল রাখতে হবে। রোগী যদি নিজে চান যে তিনি ভাল থাকবেন, তবে ডায়াবেটিস …

ডায়াবেটিসে কি খাবেন কি খাবেন না?

ডায়াবেটিস নির্দিষ্ট মাত্রার বাইরে গেলে তা শরীরের ভয়াবহ ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। তাই এ রোগে আক্রান্ত হওয়ার পর নিয়ন্ত্রণে রাখাই সর্বোত্তম পস্থা। ডায়াবেটিস রোগীদের খাবার গ্রহনে একটি নির্দিষ্ট নিয়ম মেনে চলতে হয়। খাদ্যের নিয়ম মেনে চলার প্রধান উদ্দেশ্য ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখা ও স্বাস্থ্য ভালো রাখা। এর জন্য প্রয়োজন …