ফলের সালাদ তৈরির রেসিপি এবং পুষ্টি তথ্য

আমরা সবাই সালাদ বলতে সাধারণত জানি শশা, টমেটো, গাজরের মিশ্রন। কিন্তু অনেকেই জানি না, কিভাবে খুব সহজেই বিভিন্ন ফল দিয়ে সালাদ তৈরি করা যায়। যা হবে সুস্বাদু এবং পুষ্টিগুণ সম্পন্ন। চলুন জেনে নেই ফলের সালাদ তৈরির রেসিপি এবং পুষ্টি তথ্য। 

ফলের সালাদ তৈরির রেসিপি

ফলের সালাদ তৈরির রেসিপি এবং পুষ্টি তথ্য

উপকরণঃ সম্মানিত পাঠক আসুন জেনে নেই কি কি লাগবে পুষ্টিকর ফলের সালাদ তৈরি করতে।

  • আপেল কিউব করে কাটা আধা কাপ,
  • মালটা কিউব করে কাটা আধা কাপ,
  • সবুজ এবং কালো আঙুর আধা কাপ,
  • স্ট্রবেরি কিউব করে কাটা আধা কাপ,
  • আনারস কিউব করে কাটা আধা কাপ,
  • চেরি ১ টেবিল চামচ,
  • সাদা গোলমরিচ গুঁড়া ১ চা চামচ,
  • সরষে বাটা বা কাসুন্দি ১ চা চামচ,
  • চিনি ১ টেবিল চামচ,
  • লবন পরিমাণ মত,
  • সালাদ ড্রেসিং ২ টেবিল চামচ,
  • মেয়নিজ আধা কাপ,
  • লেবুর রস ১ টেবিল চামচ।

*আপনার ইচ্ছামত ফ্রুটস বা ফল দিতে পারেন*

প্রস্তুত প্রণালীঃ

ফল ভালভাবে ধুয়ে টুকরা করে নিন। এবার টুকরা করা ফলের সঙ্গে লেবুর রস ও ১ টেবিল চামচ চিনি মেখে ২০-২৫ মিনিট রেখে দিন। এরপর সব উপকরণ একসঙ্গে মেখে ফ্রিজে ১ ঘণ্টা রেখে ঠাণ্ডা করে পরিবেশন করুন।

পুষ্টি তথ্যঃ

ফলের সালাদ বিভিন্ন রকমের ফলের সমন্বয়ে তৈরি করা হয় এতে প্রচুর পরিমাণ ডায়াটারি ফাইবার থাকে যা কোলেস্টেরলের মাত্রা কমাতে এবং কোষ্ঠকাঠিন্য প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। তাছাড়া সালাদে ব্যাবহার করা শাক সবজি, ফলমূল এবং মশলাতে প্রচুর ভিটামিন, খনিজ লবণ, এন্টিঅক্সিডেন্ট এবং ফাইটোনিউট্রিয়েন্ট থাকে যা আমাদের দেহকে সুস্থ সবল রাখতে কার্যকরী ভূমিকা রাখে। সালাদের আরেকটি কার্যকরী বেনিফিট হল এটি আমাদের শরীরের ওজন কমাতে সাহায্য করে। তাই সবারই বেশি বেশি সালাদ খাওয়া উচিৎ।

Leave a Reply