সুস্বাদু পায়েস রান্নার রেসিপি

পায়েস বাঙালির ঐতিহ্যবাহী খাবার। প্রায় সকল উৎসবেই পায়েস রান্না করা হয়। এটি একটি মিষ্টি জাতীয় খাদ্য যা খুবই জনপ্রিয়, ফুটন্ত চালের সাথে দুধ এবং চিনি বা গুড় মিশিয়ে তৈরি করা হয়।স্বাদের জন্য নারকেল কোরা, এলাচ, কিশমিশ, জাফরান, পেস্তা বাদাম বা কাজুবাদাম দেওয়া হয়। পায়েস এর আরেকটি নাম খির যার অর্থ দুধ। আমাদের দেশের অনেক জায়গায় বিশেষ করে গ্রাম বাংলায় পায়েস কে খির বলা হয়। পুষ্টি বাড়ির পক্ষ থেকে আজ থাকছে মজাদার সুস্বাদু পায়েস রান্নার রেসিপি

পায়েস রান্নার রেসিপি

পায়েস রান্নার রেসিপি

উপকরণঃ সম্মানিত পাঠক এক নজরে দেখে নিন কি কি উপকরণ লাগবে আপনার পছন্দের পায়েস রান্না করতে।

  • দুধ এক লিটার,
  • পোলাওয়ের চাল ১০০ গ্রাম,
  • চিনি ৪০০ গ্রাম,
  • নারকেল কোরা ১ কাপ,
  • কিশমিশ ১ টেবিল চামচ,
  • বাদাম ১ টেবিল চামচ (কুচি করে নিতে হবে),
  • তেজপাতা ২টি,
  • দারচিনি ২ টুকরো,
  • লবণ খুব সামান্য,
  • পানি পরিমাণমতো।

পায়েস রান্নার প্রণালিঃ

  • প্রথমে চালটা ধুয়ে কিছুক্ষণ রেখে দিতে হবে পানিতে ভিজিয়ে।
  • তারপর দুধ জ্বাল দিতে হবে। দুধ যখন ফুটতে থাকে তখন চাল দুধের মধ্যে দিয়ে দিতে হবে।
  • এরপর দারচিনি, এলাচ, তেজপাতা, নারকেল কোরা, বাদামকুচি ও সামান্য লবণ দিতে হবে।
  • চাল অর্ধেক সেদ্ধ হয়ে এলে তারপর চিনি এবং কিচমিচ মেশাতে হবে।
  • যখন দুধ ঘন হয়ে আসবে, চাল ভালোভাবে সেদ্ধ হয়ে যাবে, পরিমাণমতো চিনি দেওয়া হলে তারপর নামিয়ে নিতে হবে।
  • নামানোর পর ঠান্ডা করে পরিবেশন করুন মজাদার পায়েস।

টিপসঃ যাদের সুগারে সমস্যা আছে তারা সামান্য পরিমাণ চিনি দিয়ে পায়েস রান্না করে পরিমাণ মত খাবেন। সবসময় আপনার প্রয়োজনীয় আসবার পত্র পরিস্কার পরিছন্ন রাখবেন এবং যে কোন ধরনের খাবার তৈরি করার এবং পরিবেশনের আগে আপনার হাত সাবান দিয়ে পরিস্কার করে ধুয়ে নিবেন, এতে আপনি এবং আপনার পরিবারের সবাই রোগ মুক্ত থাকবেন। পরিশেষে ভাল থাকুন এবং পরিমিত পুষ্টিকর খাবার খান এই কামনায় শেষ করছি।

Leave a Reply