পানি খাওয়ার উপকারিতা

পানি জীবন ধারণের জন্য একটি অপরিহার্য উপাদান। মানবদেহের জন্য পানি অপরিহার্য। দেহের গঠন এবং অভ্যন্তরীণ কাজ পানি ছাড়া চলতে পারে না। আমাদের দৈহিক ওজনের ৬০-৭০% পানি। আমাদের রক্ত মাংস, স্নায়ু, দাঁত, হাড় ইত্যাদি প্রতিটি অঙ্গ গঠনের জন্য পানি প্রয়োজন। দেহকোষ গঠন ও কোষের যাবতীয় শারীরবৃত্তীয় প্রক্রিয়াগুলো পানি ছাড়া কোনোভাবেই সম্ভব নয়। প্রায় সব খাদ্যেই কম-বেশি পানি থাকে। তবে আমরা আলাদাভাবে পানি পান করে দেহের চাহিদা মেটাই। দেহ গঠন ছাড়াও পানি দেহের সব অভ্যন্তরীণ কাজ নিয়ন্ত্রণ করে। পানি ছাড়া দেহের ভিতরে কোনো রাসায়নিক ক্রিয়া হতে পারে না। পানি দেহে দ্রাবক রূপে কাজ করে। বিভিন্ন খনিজ লবণ পানিতে দ্রবীভূত থাকে। পানিতে দ্রবণীয় অবস্থায় খাদ্যের পরিপাক ক্রিয়া চলে। আবার পানিতে দ্রবীভূত থেকেই খাদ্য উপাদান দেহে শোষিত হয়। সম্মানিত পাঠক আসুন এবার দেখে নেই পানি খাওয়ার উপকারিতা সম্পর্কে-

পানি খাওয়ার উপকারিতা

গুরুত্ব বা কাজ 

  • মানব দেহে যে কোন রাসায়নিক পরিবর্তনে সাহায্য করে 
  • গ্রহণকৃত খাবার হজম, আত্মীকরন, শোষণ, সংগ্রহণ ও মল নিঃসরণ করে
  • শরীরে তাপমাত্রা রক্ষা করে, পানির জন্যই রক্ত সঞ্চালন ও তাপ নিয়ন্ত্রণ সম্ভব হয়
  • শরীরে এক স্থান হতে অন্য স্থানে পুষ্টি উপাদান পৌছায়
  • শরীরের জোড়া অংশ নড়াচড়ায় সাহায্য করে
  • পানি দেহ থেকে দূষিত পদার্থ অপসারণ করে।

উৎসঃ প্রাকৃতিক উৎস (বিশুদ্ধ পানি) এবং তরল খাবার বা পানিয়।

মাথাপিছু দৈনিক প্রয়োজনীয় পরিমাণ 

  • প্রায় আড়াই থেকে তিন লিটার (পূর্ণ বয়স্কের জন্য)

Leave a Reply