চাইনিজ ভেজিটেবল রান্নার রেসিপি এবং পুষ্টি তথ্য

সুস্বাদু চাইনিজ ভেজিটেবল খেতে মজা ও পুষ্টিকর। বিভিন্ন অনুষ্ঠানে কিংবা রেস্টুরেন্টে গিয়ে আমারা এই চাইনিজ ভেজিটেবল খাই। আমারা যদি বাসায় মনোরম পরিবেশে এটি তৈরি করতে পারি তবে নিশ্চয় রেস্টুরেন্ট এর চেয়ে ভাল ও স্বাস্থ্যকর হবে। তাই আজ আপনাদের জন্য রয়েছে মজাদার চাইনিজ ভেজিটেবল রান্না করার রেসিপি। তাহলে দেখে নিন রেসিপিটি।

চাইনিজ ভেজিটেবল রান্না

চাইনিজ ভেজিটেবল রান্নার রেসিপি এবং পুষ্টি তথ্য

উপকরণঃ এক নজরে দেখে নিন কি কি উপকরণ লাগবে চাইনিজ ভেজিটেবল রান্না করতে।

  • ফুলকপি ২ কাপ লম্বা লম্বা করে (বেশি ছোট হবে না)
  • বরবটি ১০০ গ্রাম (লম্বা, বাঁকা করে কাটা)
  • গাজর মাঝারি সাইজ (২-৩ টা, এটাও বাঁকা করে কেটে নিতে হবে)
  • পেপে মাঝারি সাইজ ২ কাপ, (গাজর এর মত বাঁকা করে)
  • বাঁধাকপি ২ কাপ (বেশি ছোট হবে না)
  • ক্যাপসিকাম ১ টা লম্বা চিকন করে কাটা
  • গোলমরিচ গুঁড়া ১ টেবিল চামচ
  • কর্ণ ফ্লাওআর বা চালের গুরা ২ টেবিল চামচ
  • চিনি আধা টেবিল চামচ
  • চিকেন এর বুকের মাংস লম্বা টুকরা করা ১ কাপ
  • কাঁচামরিচ ৭-৮ টা
  • টক ধই ১ কাপ
  • আদা ও রসুন বাটা ১ টেবিল চামচ করে
  • পেঁয়াজ (৪ ভাগ করে পাপড়ির মত ছাড়িয়ে নিতে হবে)

চাইনিজ ভেজিটেবল রান্না করার প্রনালীঃ

  • সবজি গুলোকে পাতলা করে কেটে ভাল করে ধুয়ে নিন। এর পর সবজি গুলোকে হালকা ভাপিয়ে (অর্ধ সিদ্ব) নিন এবং পানি ঝরিয়ে রাখুন এবং মুল রান্নায় চলে আসুন।
  • কড়াইতে তেল গরম করে হালকা আদা রসুন বাটা ও লবণ মেখে রাখা চিকেনের মাংস গুলো ভাঁজুন। সামান্য ভাঁজা হয়ে গেলে এবার একে একে পেঁয়াজ কিউব, কিছু কাঁচা মরিচ চিঁরে দিয়ে দিন এবং ভাল করে ভেঁজে নিন।
  • মাংস গুলো নরম হয়ে গেলে এবার সবজি, আদা রসুন বাটা, লবণ, চিনি এবং টক দই দিয়ে দিন। ভাল করে মিশিয়ে কষিয়ে নিতে থাকুন। এই পর্যায়ে এক চা চামচ গোল মরিচের গুড়া ছিটিয়ে দিয়ে দিন এবং মিশিয়ে নিন।
  • আগুনের আঁচ মাধ্যম হবে। মিনিট দশেকের জন্য ঢাকনা দিয়ে রাখুন। মাঝে একবার নাড়িয়ে দেবেন।
  • এবার হাফ কাপ গরম পানিতে দুই চা চামচ কর্ণ ফ্লাওআর বা চালের গুরা মিশিয়ে ভাল করে গুলিয়ে নিয়ে সবজিতে দিয়ে দিন। (এটা দেয়া হয় সব্জির ঝোলকে গাঢ় করার জন্য)।
  • এখন ঢাকনা খোলা রেখে জ্বাল দিন, ঢাকনা দিলে সব্জির রং নষ্ট হয়ে যেতে পারে। ঝোল কেমন রাখবেন, তা দেখে নিন এবং নামিয়ে নিন। ব্যস পরিবেশনের জন্য প্রস্তুত।

টিপসঃ সবজির রঙ ঠিক রাখার জন্য আলাদা আলাদা সেদ্ধ করলে ভালো। অবশ্যই সেদ্ধ করার সময়ই কর্ণ ফ্লাওয়ার ও লবণ দেবেন আর সিদ্ধ করার সময় ঢাকনা দিয়ে সিদ্ধ করবে না। এটা সবজির রঙ ঠিক রাখে। নিজের ইচ্ছা মতো যে কোন সবজি এড করতে পারেন বা বাদ দিতে পারেন।

পুষ্টি তথ্যঃ সবজি ছাড়া খাবার দাবার কল্পনাই করা যায় না। শাক সবজি আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য অনেক উপকারী কারণ এতে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন, খনিজ লবণ ও ডায়াটারি ফাইবার আছে যা আমাদের দেহকে সুস্থ রাখে এবং অনেক জটিল রোগ যেমন ডায়াবেটিস, হৃদরোগ, এমনকি ক্যান্সারের মতো বিভিন্ন রোগের সাথে লড়তে সাহায্য করে।

 

Leave a Reply