খাদ্য ও পুষ্টি কি বা কাকে বলে?

খাদ্য কাকে বলে?
যেসব জৈব উপাদান জীবের দেহ গঠন, ক্ষয়পূরণ এবং শক্তি উৎপাদনে ব্যবহূত হয় সেগুলোকে খাদ্য বলে। অর্থাৎ দেহের কাজকর্মসুষ্ঠুভাবে পরিচালনা করে দেহকে সুস্থ, সবল করার জন্য যেসব খাদ্য উপাদান প্রয়োজন সেসব উপাদানকেই খাদ্য বলা হয়। শরীরের যথাযথ বৃদ্ধি সাধন এবং শরীরকে সবল রাখার জন্য সঠিক পরিমাণে উপযুক্ত খাবার খাওয়া খুবই জরুরী। কারণ খাদ্য দেহের গঠন, বৃদ্ধি সাধন, ক্ষয়পূরণ, রক্ষণাবেক্ষণ, কর্মশক্তি প্রদান এবং রোগ প্রতিরোধের কাজ করে। আমরা উদ্ভিদ ও প্রাণী থেকে মূলত খাদ্য পাই। খাদ্য ও পুষ্টি সম্পর্কে যথেষ্ট ধারণা অর্জন করা দেহকে সুস্থ রাখার পূর্বশর্ত। খাদ্য দেহের পুষ্টিসাধন করে। প্রতিদিন একজন মানুষের কতটুকু খাবার গ্রহনের প্রয়োজন তা নির্ভর করে মূলত বয়স, দেহের উচ্চতা ও দেহের ওজনের ওপর। তবে বেশি শারীরিক পরিশ্রম করলে বেশি শক্তি প্রয়োজন। বয়স অনুপাতে সঠিক উচ্চতা ও ওজন নেই যাদের এবং কাজের জন্য যারা যথেষ্ট শক্তি পায় না তারা মূলত পুষ্টিহীনতায় ভুগে।

মানসম্মত ডায়েট চার্ট, স্বাস্থ্য টিপস এবং পুষ্টিকর খাবারের রেসিপির ভিডিও দেখতে পুষ্টিবাড়ির ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন… ইউটিউব চ্যানেলটিতে প্রবেশ করতে এখানে ক্লিক করুন।

খাদ্যের প্রকারভেদ
জীবদেহে খাদ্যের কার্যকারিতা অনুযায়ী খাদ্য কে দু’ভাগে ভাগ করা হয়, যেমন-

১. দেহ-পরিপোষক খাদ্যঃ  যে সব খাদ্য দেহের গঠন, বৃদ্ধি ও শক্তি উৎপাদনে সহায়কারী, তাদের দেহ-পরিপোষক খাদ্য বলে। যেমনঃ শর্করা বা কার্বোহাইড্রেট, আমিষ বা প্রোটিন এবং স্নেহপদার্থ বা ফ্যাট বা লিপিড।

২. দেহ-সংরক্ষক খাদ্যঃ যে সব খাদ্য দেহকে রোগ সংক্রমণের হাত থেকে রক্ষা করে, শক্তি উৎপাদনে সহায়ক নয়, তাদের দেহ-সংরক্ষক খাদ্য বলে। যেমনঃ খাদ্যপ্রাণ বা ভিটামিন, খনিজ পদার্থ বা মিনারালস।

খাদ্য ও পুষ্টি কি বা কাকে বলে

পুষ্টি কি বা কাকে বলে?
যে শারীরবৃত্তীয় প্রক্রিয়ায় জীব খাদ্যবস্তু গ্রহণ, পরিপাক, পরিশোধন ও আত্তীকরণের মাধ্যমে দেহের ক্ষয়পূরণ, বৃদ্ধি সাধন ও শক্তি উৎপাদিত হয় তাকে পুষ্টি বলে। অর্থ্যাৎ খাদ্য উপাদান যে প্রক্রিয়ায় শরীরের তাপ ও শক্তি জোগায়, দেহের গঠন, বৃদ্ধি ও ক্ষয়পূরণ করে এবং শরীরকে সবল ও রোগমুক্ত রেখে কর্মক্ষম জীবনযাপনে সহয়তা করে তাই হলো পুষ্টি।

অপুষ্টিঃ প্রয়োজনের তুলনায় কম বা বেশি খাবার খেলে তা শরীরকে অসুস্থ করে তোলে। একেই বলে অপুষ্টি। উন্নয়নশীল দেশে অপুষ্টি বলতে পুষ্টিহীনতা অর্থাৎ  প্রয়োজনীয় খাদ্যের অভাবকে বোঝায়।

Leave a Reply