ওজন কমাতে ডায়েট থেকে বাদ দেবেন যে ৭ টি খাবার

অতিরিক্ত ওজন কমানোর জন্য অনেকেই কত কিছুই না করে থাকেন। ব্যায়াম, ডায়েটের পাশাপাশি থাকে বিভিন্ন রকম খাবার গ্রহণ। তার পরেও ওজন কমছে না বরং বাড়ছে। সারাদিনের খাবারে আপনি এমন কিছু খেয়ে ফেলছেন না তো, যা ওজন কমানোর বদলে ওজন আরও বাড়িয়ে দিচ্ছে। চলুন জেনে নেয়া যাক ওজন কমানোর ক্ষেত্রে কোনা খাবারগুলো এড়িয়ে যাবেন।

ওজন বাড়িয়ে দেয় যে খবার

পটেটো চিপস এবং ফ্রেঞ্চ ফ্রাই
পটেটো চিপস এবং ফ্রেঞ্চ ফ্রাই খুব দ্রুত ওজন বাড়ায়। ওজন কমাতে চাইলে আপনার প্রিয় পটেটো চিপস এবং ফ্রেঞ্চ ফ্রাই খাওয়া বন্ধ করুন। কারণ এতে উচ্চ ক্যালরি ও ফ্যাট থাকে যা রক্তে সুগারের মাত্রা বৃদ্ধি করে।

প্যাকেট ফ্রুট জুস এবং কোমল পানীয়
প্যাকেটজাত ফলের জুস এবং কোমল পানীয়তে প্রচুর পরিমাণে চিনি থাকে যা ওজন বৃদ্ধি করে থাকে। এগুলোতে প্রিজারভেটিভ মেশানো থাকে আর ফাইবার প্রায় থাকে না বললেই চলে। তাই বাজারের ফলের রসের পরিবর্তে তাজা ফল খাওয়ার অভ্যাস করুন।

বেশী চিনি যুক্ত খাবার
খুব বেশী চিনি যুক্ত খাবার স্বাস্থ্যের জন্য খুবই ক্ষতিকর। শুধু খাবার নয়, চিনি যুক্ত পানীয় যেমন সোডাও ক্ষতিকর। এছাড়া বেশী চিনি যুক্ত চা-কফি, যেকোনো ক্যান্ডি বা লজেন্স, এগুলোও বাদ দিতে হবে যদি সত্যিই ওজন কমাতে চান।

ডায়েট সোডা
ওজন কমানোর জন্য অনেকেই ডায়েট সোডা খান। কিন্তু আপনি জানেন কি ডায়েট সোডার আর্টিফিশিয়াল সুগার আপনার ওজন আরো বৃদ্ধি করছে। এছড়া এটি ডায়াবেটিস এবং হৃদরোগ হওয়ার ঝুঁকিও বৃদ্ধি করে।

ফাস্টফুডকে না বলুন
ফাস্টফুডে প্রচুর চর্বি এবং ক্যালোরি থাকে যার ফলে খুব দ্রুত ওজন বাড়ে। তাই ফাস্টফুড, কোমল পানীয় এবং সোডা এই খাবারগুলোকে একেবারে না বলুন।

সালাদ ড্রেসিং
ওজন কমানোর জন্য অনেকেই সালাদ খেয়ে থাকেন। কিন্তু এই সালাদে ব্যবহৃত কমার্শিয়াল সালাদ ড্রেসিং আপনার ওজন বৃদ্ধি করে। এতে প্রচুর পরিমাণ ফ্যাট এবং ক্যালরি থাকে।

চর্বিযুক্ত মাংস
চর্বিযুক্ত মাংসে প্রচুর পরিমাণে সম্পৃক্ত ফ্যাট রয়েছে, যা হৃদরোগের ঝুঁকিও বাড়ায়। তাই এর বদলে প্রোটিনসমৃদ্ধ চর্বি বিহীন মাংস, ডাল এবং বাদাম জাতীয় খাবার খাবেন।

এই সব কটা খাবারই মারাত্মক ভাবে ওজন বাড়াতে সাহায্য করে। তাই যদি সত্যি সত্যি ওজন কমাতে চান তাহলে এই কয়েকটি খাবারকে আজই বিদায় জানান।

Leave a Reply